দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

এমন কাজ করতে চাই যেনো মৃত্যুর পরে লোকে বলে খান মাসুদ ভালো মানুষ ছিলেন

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্টঃ-

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২২নং ওয়ার্ডে তরুণ কাউন্সিলর পদপ্রার্থী খান মাসুদকে রাজবাড়ী পঞ্চায়েত কমিটির পক্ষ থেকে সমর্থন দিয়ে মসজিদে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাজবাড়ি বাইতুন আমান জামে মসজিদে এ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

২২ নং ওয়ার্ডে পরিবর্তন চেয়ে রাজবাড়ি পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি ইকবাল হোসেন রতন,সহ-সভাপতি আহমেদ হোসেন,মোবারক সরদার, সাধারণ সম্পাদক নিউটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলামের উপস্থিতিতে সকলের সম্মতিক্রমে স্বতঃস্ফূর্তভাবে খান মাসুদকে এ সমর্থন দেয়া হয়।

জুম্মা’র নামাজ আদায় পূর্বে সকলের উদ্দেশ্য খান মাসুদ বলেন, আমি রাজনীতি করি মানুষের কল্যাণে কাজ করার জন্য। আমি সবসময় চেষ্টা করি আমার সাধ্যমতো অসহাদের পাশে দাঁড়াতে। আমি আপনাদের কোন প্রতিশ্রুতি দিবনা শুধু এইটুকু বলব আল্লাহ যদি আমাকে এই পবিত্র চেয়ারে বসায় তাহলে আমি সর্বপ্রথম আপনাদের সমাজের পঞ্চায়েত ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করবো। যাতে এলাকায় কোন কিছু করতে হলে আপনাদের পঞ্চায়েতকে জিজ্ঞেস করে তারপর করে। আগের দিনের মতো যুবকরা যেন মুরুব্বিদের সম্মান করে। এলাকায় কেউ যেন কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে। সে যদি আমার লোক বা আমার আত্মীয়ও হয় তাকেও ছাড় দেয়া হবেনা। আমি পঞ্চায়েত ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে এসমাজকে আপনাদের দ্বারা পরিচালিত করবো।

খান মাসুদ বলেন,আমি কোনদিন চিন্তাও করিনি আমি কাউন্সিলর পদে দাঁড়াবো। বিগত নির্বাচনে আমাকে অনেকেই নির্বাচন করতে বলেছিল। আমি সরাসরি না বলে দিয়েছি। কিন্তু এবার মহামারি করোনাকালীন সময় যখন দেখলাম লকডাউনে ঘরবন্দী মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত ও অসহায় মানুষগুলোর পাশে অনেক ধনাঢ্য ব্যাক্তিরাও দাঁড়ায়নি তখন আমার বন্ধুদের ও আমার সামর্থনুযায়ী তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলাম।

কিন্তু এই সাহায্য আমার আত্মতৃপ্তি আসেনি। তখনই আমাকে অনেক পঞ্চায়েত লোক বল্লো তুমি এবার কাউন্সিলর নির্বাচন করো। তখন আমি চিন্তা করে দেখলাম জনপ্রতিনিধি না হলে জনগণের চাহিদা মতো সাহায্য সহযোগিতা করা যায়না। কারণ সরকার যে অনুদান দেয় আর তা যদি কেউ চুরি না করে তাহলে মানুষকে সন্তুষ্টি করা যায়। তাই আমাকে প্রথমবারের মতো একটা সুযোগ দেন আমি আপনাদের দায়িত্ব নিতে চাই। আমি এমন কাজ করে যেতে চাই যেনো মৃত্যুর পরে লোকে বলে খান মাসুদ একজন ভালো মানুষ ছিলেন। আমার জন্য দোয়া করবেন আল্লাহ যেন আমাকে কামিয়াব করেন।

নামাজ শেষে কাউন্সিলর প্রার্থী খান মাসুদের জন্য মিলাদ ও দোয়া করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন,রাজবাড়ী বাইতুল আমান জামে মসজিদের ইমাম মুফতি কামরুল হাসান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,আমির হোসেন,সাইদুল ইসলাম সবুজ,মোঃ সোহেল,মাসুম,হুমায়ুন কবির বাবু,মোঃ সাদ্দাম,জুয়েল, জুম্মান,সানি, রাব্বি,শুভ ফজলু,রনি,সায়েম প্রমুখ।

পরিশেষে সকল মুসুল্লিদের মাঝে তোবারক বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook