দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

খানবাড়ির পক্ষ থেকে কাউন্সিলর প্রার্থী খান মাসুদেকে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে দোয়া অনুষ্ঠিত

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্টঃ-

আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী খান মাসুদকে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে খান পরিবারের মিলনমেলা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। খান পরিবারের উদ্যোগে শুক্রবার বাদ জুম্মা বন্দর খানবাড়িস্থ এ মিলনমেলা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া অনুষ্ঠানে খানবাড়ির প্রয়াত সকলের রূহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন র‍্যালী আবাসিক এলাকা জামে মসজিদের পেশ ইমাম মুফতী সোলেইমান মজুমদার।

দুপুরের ভূরিভোজন শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

খান পরিবারের কৃতি সন্তান খান মাসুদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন,বন্দর শিশুবাগ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কুতুবউদ্দিন খান, নারায়ণগঞ্জ জেলা সাবেক ডিপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশাররফ খান, লেজারার্স আবাসিক এলাকা জামে মসজিদের সভাপতি জসিম উদ্দিন খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ খান,বশির খান,কাজল খান।

রাজিন খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কাউন্সিলর প্রার্থী খান মাসুদকে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে বক্তারা বলেন, বন্দরে আমাদের এই খানবাড়ির একটা ঐতিহ্য রয়েছে। বিগত সময়ে এই অত্র এলকায় মরহুম জয়নাল আবেদীন দীর্ঘদিন সুনামের সাথে কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি সবসময়ই মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়জিত রেখেছিলেন। তাই এখনও মরহুম জয়নুল আবেদীন খান চাচার নাম এখনও মানুষ সম্মানের সাথে স্মরণ করে। আমাদের আরেক চাচা কুতুবউদ্দিন খান তিনিও একসময় অসহায় মানুষের পাশে পাশে থেকে সমাজ সেবা করতেন। এই খানবাড়ির সম্মান রক্ষার্থে কুতুব চাচার ভূমিকাও ছিল মনে রাখার মতো। তিনি এখনও শিশুবাগ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসাবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। আমাদের আরেক চাচা বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন খান ছিলেন,বন্দর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার। আরেক চাচা মরহুম সামাদ খান ছিলেন একজন ক্রীড়া সংগঠন প্রেমি ও সংগীত একাডেমি পরিচালনার মাধ্যমে মানুষের মানুষিক বিকাশ বৃদ্ধি করতেন। আমাদের এই খানবাড়িতে অনেক মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন। এসব কিছু মিলে বন্দরবাসীর কাছে আমাদের এই খান পরিবারের ব্যাপক সুনাম রয়েছে। কিছুতেই যেন আমাদের এই বাড়ির সুনাম ম্লান হয়ে না যায় সেজন্য সাবাই মিলে মিশে কাজ করতে হবে।

সামনে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন এবং ২২ নং ওয়ার্ডে আমাদের বাড়ির সন্তান খান মাসুদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। মরহুম জয়নুল আবেদীন খান চাচার মৃত্যুর পর রাজনৈতিক ও সামাজিকভাবে খানবাড়ির ঐতিহ্য ধরে রাখার মতো কেউ এগিয়ে আসেনি। তবে খান মাসুদ মানুষের সেবা করে এই বাড়ির ঐতিহ্য ধরে রাখতে যেভাবে কাজ করে যাচ্ছে আমরা আমাদের খান পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে সাধুবাদ জানাই। মাসুদ ইতিমধ্যে করোনাকালীন সময় ঘরবন্দী অসহায় মানুষের বাড়িতে রাতের আঁধারে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে মানুষের মনের কোঠায় যায়গা করে নিয়েছেন। তাই আগামী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২২ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদপ্রার্থী খান মাসুদকে বিজয়ী করতে আমাদের খানবাড়ির সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। এসময় কুতুবউদ্দিন খানের নেতৃত্বে খান মাসুদকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, নূর মোহাম্মদ খান,দিল মোহাম্মদ খান,সাইদুর খান,আয়ূব খান,বৈজ্ঞানিক আজাদ খান,বাদল খান,আসলাম খান,কাজল খান,চঞ্চল খান,লিটন খান,সারোয়ার খান,রোকন খান,মিঠু খান,জামান খান,পল খান,বিপ্লব খান,রাসেল খান,মেহেদী খান,রাজিন খান,জুবায়ের খান,সায়েম খান,লেবিন খান, হাফেজ নাঈম খান।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বাড়ির জামাইদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, জব্বার হোসেন, আতিক আহমেদ,মোঃ রোমান,শরিফ হাসান চিশতী, মাইনুদ্দিন মানিক,মোঃ আসলাম,মোঃ বাচ্চু,মোঃ শাহ্ জাহান।

আরও উপস্থিত ছিলেন, রাজু আহমেদ, ইকবাল,শ্যামল, ইলিয়াস ও খান পরিবারের পুত্রবধূসহ চাচা চাচিদের নিয়ে একটি পূর্নাঙ্গ মিলনমেলা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়াও উৎসবমুখর পরিবেশে পরিবারের পক্ষ থেকে মজার মজার ধাঁধা,লটারি খেলা ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook