মঙ্গল. ডিসে ১, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

মাসাকাদজাকে যথার্থ সম্মান দিয়ে বিদায় জানালো বিসিবি

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্ট:

বিদায়টা স্বপ্নের মতো হয়েছে হ্যামিল্টন মাসাকাদজার। ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ বর্ণিল আবিরে রাঙিয়েছেন তিনি। ব্যাট হাতে চার-ছক্কার ফুলঝুরিতে দলকে জিতিয়েছেন। উড়তে থাকা আফগানিস্তানকে মাটিতে নামিয়ে জিম্বাবুয়েকে এনে দিয়েছেন বহুল কাক্সিক্ষত জয়। হয়েছেন ম্যাচসেরা, গড়েছেন একাধিক রেকর্ড। সেই সঙ্গে কপালে জুটেছে যথার্থ সম্মানের সঙ্গে বিদায়ী সংবর্ধনা।

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে নিজেদের শেষ ম্যাচে আফগানদের ৭ উইকেটে হারিয়েছে জিম্বাবুয়ে। যুদ্ধবিধ্বস্ত লড়াকু দলটির বিপক্ষে এটিই তাদের প্রথম জয়। ঐতিহাসিক দিনে মাসাকাদজা খেলেছেন ৪১ বলে ৭১ রানের ম্যাচজয়ী বিধ্বংসী ইনিংস। এ পথে অনন্য রেকর্ড গড়েছেন তিনি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসে বিদায়ী ম্যাচে কোনো ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস এটি। বিদায়বেলায় আরও বেশ কয়েকটি কীর্তি গড়েছেন জিম্বাবুইয়ান অধিনায়ক।

এ ম্যাচ দিয়েই দীর্ঘ প্রায় দেড় যুগের ক্যারিয়ারের ইতি টেনেছেন মাসাকাদজা। অনেক অর্জনের ম্যাচে তাকে যথার্থ সম্মাননা দিয়ে বিদায় জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। স্মরণীয় ম্যাচে তার হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন টাইগারদের সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান ধারাভাষ্যকার আতহার আলি খান। পাশাপাশি নিজ দেশের বোর্ডের কাছ থেকেও উপহার পান তিনি। বিদায়ী ক্রিকেটারকে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের স্মারক তুলে দেন দলের ম্যানেজার লাভমোর বান্দা।

২০০১ সালে জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় মাসাকাদজার। ওই বছরই টেস্টে সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড গড়েন তিনি। কিছু দিন না যেতেই সেটি ভেঙে দেন বাংলাদেশের লিটল মাস্টার মোহাম্মদ আশরাফুল।

এর পর ১৮ বছরের লম্বা ক্যারিয়ারে ৩৮টি টেস্ট, ২০৯টি ওয়ানডে ও ৬৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন মাসাকাদজা। ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণে ৭৬ ইনিংসে ৫ সেঞ্চুরিতে ৩০.০৪ গড়ে ২২২৩ রান করেছেন তিনি। ২০৯টি ওয়ানডেতে সমানসংখ্যক সেঞ্চুরি সহকারে ২৭.৭৩ গড়ে ঝুলিতে ভরেছেন ৫৬৫৮ রান। আর ৬৬টি টি-টোয়েন্টিতে ২৫.২৫ গড়ে সংগ্রহ করেছেন ১৬৬২ রান। সবশেষ ফরম্যাটে দলটির হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক এখন হ্যামিল্টন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook