শনি. সেপ্টে ২৬, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

একটাই অনুরোধ থাকবে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আর উল্টা পাল্টা কোন স্ট্যাটমেন্ট দিয়েন না – অয়ন ওসমান

নিজেস্ব প্রতিবেদক:-

নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, কবি ও সাংবাদিক হালিম আজাদ সাংসদ শামীম ওসমান, তার ছেলে অয়ন ওসমান এবং ভাতিজা আজমেরী ওসমানের গ্রেফতার দাবি করেছিলেন। এ নিয়ে গত দুদিন ধরে ওসমান পরিবার অনুসারিদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।

৮ জুন ত্বকী হত্যার বিচার দাবিতে নগরীর আলী আহম্মদ চুনকা পাঠাগারের সামনে আয়োজিত মোম শিখা প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করেন সন্ত্রাস নির্র্মূল ত্বকী মঞ্চ। এখানে বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির সদস্য সচিব হালিম আজাদ।

তিনি তার বক্তব্যে বলেছিলেন, “শামীম ওসমান ত্বকী হত্যার পরিকল্পনাকারী। প্রধান খুনি আজমেরী ওসমান। শামীম ওসমানের ছেলে অয়ন ওসমানও জড়িত। এ কথা বহুবার আমরা বলেছি। তবুও বিচার হচ্ছে না কারণ প্রশাসন তাদের শেল্টার দিচ্ছে। শামীম ওসমানের দম্ভের কাছে তারা মাথা নত করে রেখেছে। সংসদে কোন খুনি ঢুকলে সে সংসদের মর্যাদা থাকে না। শামীম ওসমান, অয়ন ওসমান ও আজমেরী ওসমানের গ্রেফতারের দাবি জানাই।”

প্রবীণ ওই সাংবাদিকের ওই বক্তব্যের পরই ক্ষিপ্র হয়ে উঠেন ওসমান পরিবার সমর্থক আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের একটি অংশ। তারা হালিম আজাদের গ্রেফতার দাবি তুলেন। একই সাথে তারা প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নিয়ে বিষোদগারের অভিযোগ তুলেন ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে।

তবে, এ নিয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক ভাবে কোনো বক্তব্য না দিলেও হালিম আজাদের ওই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে নিজের অভিমত তুলে ধরেছেন সাংসদ শামীম ওসমান পুত্র অয়ন ওসমান। ১০ জুন তিনি তার ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে হালিম আজাদের বক্তব্য প্রসঙ্গে একটি পোস্ট করেন।

অয়ন ওসমান তার ফেসবুকে লিখেছেন, “যদি আমি বাংলা সিনেমার ভিলেন হতাম তাহলে, ডাইলগ দিতাম যে, এই হালিম আমি ফু দিলে তুই আজাদ হইয়া যাবি, যদি একজন রাজনীতিবীদ হতাম তাহলে বলতাম যে, এই মিথ্যাচার এবং অপপ্রচারের রাজনৈতিক কৌশল ছেড়ে সাধারন জনগনের পাশে দারান (দাঁড়ান) এবং নারায়ণগঞ্জ এর উন্নয়ন মূলক কার্যকলাপ বজায় রাখার সর্বোচ্চ সহযোগীতা করেন।

যেহেতু আমি একটাও না আমাকে ফ্রি পাবলিসিটি দেওয়ার জন্য আমি আপনাদের আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাতে চাই। এটা জানা স্বত্বেও যে আমার সিভিল রাইটস্ লঙ্ঘন হয়েছে, যেহেতু আমি একজন আইন এর ছাত্র এবং আমার আইন শৃঙ্খলার উপর বিশ্বাস রয়েছে। আপাতত একটাই অনুরোধ থাকবে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আর উল্টা পাল্টা কোন স্ট্যাটমেন্ট দিয়েন না। উনার প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা আছে বলেই নারায়ণগঞ্জ এখনো কোন একশনে (অ্যাকশনে) যায় নাই এবং আসা করি যাবেও না।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook