বুধ. অক্টো ২১, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

নওগাঁর রাণীনগরে প্রকাশ্য দিবালোকে নির্মানাধীন বাড়ি ভেঙ্গে দিলো সন্ত্রাসীরা- বিরাজ করছে টানটান উত্তেজনা

ওমর ফারুক, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ
নওগাঁর রাণীনগরে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে গ্রামের লোকজনদের অস্ত্রের মুখে ভয় দেখিয়ে মুন্টু প্রাং নামের এক ব্যক্তির ইটের নির্মানাধীন বাড়ি ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ স্বপন হোসেন।
ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) উপজেলার গোনা ইউনিয়নের ঝিনা গ্রামে।
জানা গেছে, ঝিনা গ্রামের লাল মোহাম্মদ’র ছেলে মুন্টু প্রাং তার পৈতিক সম্পত্তিতে আরসিসি পিলার দিয়ে বাড়ি নির্মাণ শুরু করে।
ইতিমধ্যেই নির্মাণের কাজ প্রায় শেষের দিকে। বাড়ি নির্মাণের শুরুতে পর্যাপ্ত জায়গা ছেড়ে দিয়ে কাজ শুরু করলে প্রতিবেশী মৃত মজিবর মাস্টারের ছেলে প্রতিপক্ষ মো: স্বপন হোসেন তার বাড়িতে যাওয়া-আসার জন্য প্রায় চার/পাঁচ হাত জায়গা ছেড়ে বাড়ি নির্মাণ করতে বলে।
এনিয়ে গ্রামে বেশ কয়েকবার বৈঠক হলে মুরব্বিগণরা প্রতিপক্ষ স্বপনের অনায্য দাবি থেকে সরে এসে মিল-মহব্বতে উভয়কে বসবাসের পরামর্শ দেন।
সেই মোতাবেক মুন্টু তার বাড়ি নির্মাণ কাজ চালিয়ে যান। এছাড়াও কয়েক বার ওই জায়গা মাপযোগ করে দেখা যায় স্বপনের বাড়ির দেয়াল থেকে সম্পর্ণ জায়গায় ভ‚ক্তভোগি মুন্টু’র। স্বপন তার বাড়ি করার সময় এক ইঞ্চিও ছাড়েনি অথচ এখন অন্যের জায়গার উপর দিয়ে পুরো রাস্তা নেয়ার দাবি করে আসছেন বলে স্থানীয়রা জানান।
এর জ্বের ধরে বৃহস্পতিবার মুন্টুর বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে স্বপনের নেতৃত্বে দুপুরের দিকে দেশীয় রামদা, চায়নিজ কুড়াল, রড ও লাঠি-শোটা হাতে নিয়ে ভাড়াটিয়া প্রায় দেড় শতাধিক সন্ত্রাসীরা গ্রামের লোকজনদের অস্ত্রের মুখে ভয় দেখিয়ে আরসিসি পিলার গ্যান্ডার মেশিন দিয়ে কেটে ও ভাড়ি হামবল দিয়ে দেয়াল ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়।
 খবর পেয়ে বাড়ির মালিক মন্টুসহ তার পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে দেখতে পাই তাদের নির্মানাধীন বাড়ি ভেঙ্গে দিয়ে স্বপনসহ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা বীরদর্পে ঘটনাস্থল ত্যাগ করছে বলে মুন্টু প্রাং ও তার পরিবারের লোকজন জানান। প্রতিপক্ষ মো: স্বপন হোসেনের ফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
ভূক্তভোগি মুন্টু’র ছোট ভাইয়ের স্ত্রী তহমিনা বেগম জানান, আমরা সবাই আজ সকালে উপজেলার রাতোয়াল গ্রামে আত্মীয়র বাড়িতে দাওয়াত খেতে গিয়েছিলাম। সেখানে মোবাইল ফোনে খবর পাই যে, স্বপনের নেতৃত্বে আমাদের বাড়ি-ঘর ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে।
দ্রুত সবাই বাড়িতে এসে দেখতে পাই, স্বপনের নেতৃত্বে দেড় শতাধিক সন্ত্রাসীরা রামদা, চায়নিজ কুড়াল, রড়, লাঠি হাতে নিয়ে আমাদের বাড়ি ঘিরে রেখেছে, গ্রামের কাউকে সেখানে যেতে দেয়া তো দূরের কথা তাদেরকে দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে কোন কথা বলারও সুযোগ দেয়নি।
বাড়ির মালিক মুন্টু’র ভাই লেবু প্রাং  জানান, আমার ভাই তার বাড়ি ভেঙ্গে দেয়া দেখে কান্না-কাটি করতে করতে অচেতন হয়ে পড়ে। বর্তমানে তিনি আতংকিত হয়ে সন্ত্রাসীদের ভয়ে বাড়িতে রয়েছেন। আমরা স্বজনদের পরামর্শক্রমে শীঘ্রই সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থার জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিচ্ছি।
রাণীনগর থানার ওসি মো: জহুরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন সন্ত্রাসীরা পালিয়েছে এবং নির্মানাধীন বাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছে।  ভূক্তভোগিদের থানায় অভিযোগ বা মামলা করলে  দোষীদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook