শুক্র. অক্টো ৩০, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

বন্দরে নরপদীতে আবুল হত্যাঃ ৫ দিনেও খুনীদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

বন্দর প্রতিনিধি :- বন্দরে নরপদী এলাকার আবুল হোসেন হত্যা মামলার ৫ দিন অতিবাহিত হতে চললেও এখনও হত্যাকারীদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি বন্দর থানা পুলিশ। গত ১১ মে সকালে ভুমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে আপন ফুফাকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসী মোজাম্মেল হক বাবু গংরা। এঘটনার পর থেকে হত্যাকারীরা এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। পরে ৩ জনের নাম উল্লেখ করে মৃত আবুল হোসেনের স্ত্রী তাসলিমা বেগম বাদী হয়ে বন্দর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। হত্যাকারীরা হলো- নরপদী এলাকার মোস্তফা, পিতা মোজাম্মেল হক বাবু ও মাথা মোহসিনা। 

নিহত আবুল হোসেন থানার পুরান বন্দর চৌধুরীবাড়ি এলাকার মৃত কফিলউদ্দিন প্রধাণের ছেলে। 

ঘটনা সূত্রে জানায়, বন্দর উপজেলাধীন কলাগাছিয়া ইউনিয়নস্থ নরপদি পূর্বপাড়া এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যায় আমগাছকে কেন্দ্র করে আবুল হোসেন ও তার সমন্ধি মোস্তফার পরিবারের সাথে বাকবিতন্ডা ঘটে। এ নিয়ে মোস্তফা ও তার ছেলে মোয়াজ্জেম হোসেন বাবু লাঠিসোঁটা নিয়ে আবুল হোসেন ও তার পরিবারের লোকজনকে বেধরক পেটায়। এ ব্যাপারে ঐদিন রাতেই আবুল হোসেনের স্ত্রী তাসলিমা বেগম বাদী হয়ে বন্দর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরদিন সকালে ফের দু’পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা হলে এক পর্যায়ে মোজাম্মেল হক বাবু , তার বাবা মোস্তফা মিয়া ও মা মোহসেনা দেশীয় অস্ত্রসহ আবুল হোসেন ও তার পরিবারের উপর আক্রমণ করে। এসময় তাদের দা-চাপাতির আঘাতে আবুল হোসেন ও তার মেয়ে পিপলীকে গুরুতর অবস্থায় নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। পরে হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক আবুল হোসেনকে মৃত ঘোষনা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook