শনি. অক্টো ৩১, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

বন্দরে নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করতে চাইলে ভোট গ্রহন বন্ধ : রফিকুল ইসলাম

নিজেস্ব প্রতিবেদক:-

নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম বলেছেন, কেউ বলছে নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছি, পত্রিকার পাতা খুললেই দেখি নির্বাচন কমিশনকে শত শত গালি দেয়া হচ্ছে। এই যে গালি দেয় তার জন্য আমরা না যতটুকু দায়ি তার চেয়ে বেশী দায়ি ভোটগ্রহন কর্মকর্তারা। কিন্তু গালি খায় নির্বাচন কমিশন।

প্রিজাউডিং অফিসার এবং পোলিং এজেন্টদের উদ্দেশে তিনি বলেন, নির্বাচনে কোন প্রকার অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না। বন্দর উপজেলা নির্বাচনে ভোট গ্রহনের সময় যদি কেউ প্রভাব বিস্তার করে তবে ভোট গ্রহন বন্ধ করে দিবেন। এমনকি অনেক সময় হতে পারে নির্বাচনের দায়িত্ব নিয়োজিত পুলিশ ও ম্যাজিস্ট্রেট আপনাকে একজনের ভোট আরেকজনকে দিতে বাধ্য করছে তবে সাহস করে নির্বাচন বন্ধ করে দিবেন আপনাদের সব রকমের প্রোটেকশন দেয়া হবে।

বুধবার (১২ জুন)  বন্দর উপজেলা পরিষদ হল রুমে পঞ্চম ধাপে হওয়া উপজেলা নির্বাচনের ভোট গ্রহন কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষন কর্মসুচীতে প্রধান অতিথি বক্তব্যে রফিকুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও বন্দর উপজেলা নির্বাচনের রিটানিং কর্মকর্তা মাছুম বিল্লাহ অনুষ্ঠানের সভাপতিত্বে করেন।

উল্লেখ্য বন্দর উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ রশিদ। নারী ভাইস চেয়ারম্যান ও পুরুষ ভাইস চেয়াম্যান পদে নিবাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook