রবি. আগ ৯, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

বন্দরে ব্রিজের সিড়ির কারণে দুর্ভোগে এলাকাবাসী

আজকের বাংলাদেশ রির্পোট:-

নারায়ণগঞ্জ সিটি করর্পোরেশন (নাসিক) ২৭ নং ওয়ার্ড এর হরিপুর ও চাপাতলা দুই এলাকার যোগাযোগের জন্য নির্মিত ব্রিজের দুপাশে সিড়ি থাকায় ব্রিজটি এলাকাবাসীর কোনো কাজেই আসছে না। জনদূর্ভোগ লাঘবের জন্য এই ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছিলো। কিন্তু সেই ব্রিজের দুই পাশেই সিড়ি থাকায় হরিপুর ও চাপাতলা এলাকার প্রায় কয়েক সহস্রাধিক মানুষের ভোগান্তি চরমে। সবচেয়ে বেশি দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে চিকিৎসার জন্য শহরে যাওয়া রোগী, স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসাগামী শিক্ষার্থী, চাকরিজীবি ও অন্যান্য শ্রেণি-পেশার মানুষদের।

জানা যায়, বন্দর থানার হরিপুর ও চাপাতলা এলাকার জনসাধারণের চলাচলের সুবিধার্থে ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়। কিন্তু এর দুপাশে সিড়ি থাকায় উভয় এলাকাবাসীদের প্রায় ৩ কিলোমিটার রাস্তা অতিরিক্ত ঘুরতে হচ্ছে।

হরিপুর এলাকাবাসী জানান, ব্রিজের দুপাশে সিড়ি থাকার কারণে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের পাশাপাশি অন্যান্য শ্রেণি-পেশার মানুষের চলাচলে চরম অসুবিধা হচ্ছে। দুটি এলাকার বসবাসকারীদের প্রায় ৩ কিলোমিটার রাস্তা অতিরিক্ত ঘুরে ওপার থেকে এপার কিংবা এপার থেকে ওপার যেতে হচ্ছে। ফলে আমাদের সময় নষ্ট হচ্ছে দুই মিনিটের জায়গা আধা ঘন্টা ঘুরতে হচ্ছে। এতে ভোগান্তিরও শেষ নেই।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এর মেয়র ড. সেলিনা হায়াৎ আইভি কয়েক বছর আগে এই ব্রিজের উপর দাড়িয়ে থেকে এলাকাবাসীদেরকে কথা দেন যে, অতিশীঘ্রই রাস্তার সাথে এই ব্রিজের সংযোগ করে দেওয়া হবে। মেয়রের এই আশ্বাসের পরও বছরের পর বছর দুর্ভোগ পোহাচ্ছে এলাকাবাসী। কয়েক বছরেও তার বাস্তবায়নের কোনো খবর নেই। এতে সিটি করপোরেশনের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করছেন এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে নাসিক ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান বাবুল জানান, এ এলাকা যখন ইউনিয়ন পরিষদের অধীনে ছিলো তখন এ ব্রিজটি নির্মান হয়।তবে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এ বিষয়ে প্রকল্প গ্রহন করেছে। অর্থ বরাদ্দ হলেই ব্রিজটি নতুন করে নির্মান করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook