শুক্র. অক্টো ৩০, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

বন্দরে শিক্ষা সফরে গিয়ে নিহত যুথির নামে শ্রেনী কক্ষের উদ্ধোধন

বন্দর প্রতিনিধি :- শিক্ষা সফরে গিয়ে মৃত্যু বরনকারী বন্দর গার্লস স্কুলের শিক্ষার্থী সাদিয়া আলম যুথীর নামে একটি শ্রেনী কক্ষের নামকরন করা হয়েছে যুথি কক্ষ।

শনিবার (১১ মে) সকাল ১১ টায় বন্দর গার্লস স্কুলের ১০২ কক্ষের নামকরন করা হয় যুথি কক্ষ।কক্ষটির উদ্ধোধন করেন যুথির বাবা জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ ভূইয়া,গর্ভনিং বডির সভাপতি হাবিবুর রহমান, সদস্য মোঃ পাভেল,সেলিম চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন, যুথির চাচা শ্রমিক নেতা এসটি আলমগীর সরকার, বন্দর থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খান মাসুদ,মাজেদুল হক সরকার, আমিন আবাসিক এলাকার সমাজসেবক ইব্রাহীম সরকার, মোজাম্মেল হোসেন, লুৎফর রহমান, মাহাবুব হোসেন,আলমগীর হোসেন,মোহাম্মদ হোসেন,আলফাজ আলী,গোলাম মোঃ মিল্টন, মোকতার হোসেন, হাজ্বী আবজাল,নুর মোহাম্মদ নুরু,মোঃ বায়জিদ,সাদিয়া আলম যুথির বড় ভাই রায়হান সরকার,যুবলীগ নেতা শেখ মনির,সত্য নারায়ন চৌধুরী,প্রধান শিক্ষক বদরুজ্জামান প্রমুখ।

কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ ভূইয়া বলেন,বন্দর গার্লস স্কুলের মেধাবী শিক্ষার্থী সাদিয়া আলম যুথির অকাল মৃত্যুতে আমরা গভীর ভাবে শোকাহত। আমি স্কুল কমিটির কাছে অনুরোধ করবো যেন প্রতিবছর যুথির মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়।

গর্ভনিং বডির সভাপতি হাবিবুর রহমান বলেন,রেজিলেশন করে যুথির নামে একটি কক্ষ বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে।ভবিষ্যতে নতুন ভবন করা হয় তাহলে যুথির নামে একটি শ্রেনী কক্ষ বরাদ্ধ থাকবে স্কুল যতদিন থাকবে।

পরে দোয়ার মধ্য দিয়ে যুথি আত্নার মাগফেরাত কামনা করা হয়। পরে গর্ভনিং বডির সকল সদস্য নিহত যুথির বাসায় গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের শান্তনা দেন ও সমবেদনা জানান।

উল্লেখ্য ২০১৯ সালের ৭ এপ্রিল বন্দর গার্লস স্কুলের শিক্ষাসফরে গাজিপুর বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্কে গিয়ে মৃত্যু বরন করে মেধাবী শিক্ষার্থী সাদিয়া আলম যুথি।পরের দিন গ্রামের বাড়ি আলীরটেকে দাফন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook