সোম. সেপ্টে ২৮, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

মানসম্মত শিক্ষা বলতে জিপিএ-৫ পাওয়া নয়: ডিসি

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্ট:

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন বলেছেন, ‘মানসম্মত শিক্ষা বলতে জিপিএ-৫ পাওয়া নয়। মানসম্মত শিক্ষা হলো লেখাপড়া করে ভাল রেজাল্ট করবো এবং নিজেকে সুযোগ্য সন্তান হিসাবে প্রতিষ্ঠা করবো। মানসম্মত শিক্ষার জন্য বাড়তি টেনশন করতে হবে না। আমরা নারায়ণগঞ্জে মানসম্মত শিক্ষা ব্যবস্থা করতে চাই। আমরা এমন শিক্ষা ব্যবস্থা করবো বাংলাদেশ যাতে আর কোনদিন পিছিয়ে চলে না যায়। আমরা এমন শিক্ষিত করবো না যাতে মাকে বিদ্ধাশ্রম পাঠাতে হয়।’

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিকেলে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সহযোগিতায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের মৃত্যু বার্ষিকী ও জাতির শোক দিবস উপলক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ ও চিত্রাংঙ্কন প্রতিযোগিতার প্রধান অতিথি বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের উদ্দ্যেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, ‘আমি বিশ^াস করি আজকে যারা বঙ্গবন্ধুর ছবি একেছো ও লাল সবুজের পতাকা একেছো এবং আমাদের দুঃখের দিনে ৭৫ এর ১৫ আগস্টের কথা লিখেছো আর যখন এ দেশের হায়ানাররা বঙ্গবন্ধুর লাশকে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় নিয়ে যানাজা পড়তে দিতে চায়নি। সেই কষ্টের কথা লিখেছ আমি দেখে আমি অবিভূত হয়েছি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে তোমরা এমন কিছু করো যাতে একদিন তোমরা বঙ্গবন্ধু হও সেই প্রত্যাশা করছি। আর আজকের অনুষ্ঠানের পর তোমরা বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির জন্য হলেও প্রতিদিন একটি হলেও ভাল কাজ করতে হবে। তোমরা তোমাদের মায়ের কাজের একটু হলেও সহযোগিতা করলে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করাটা সার্থক হবে। আর তোমার মা মনে করবে আমার সন্তান বঙ্গবন্ধুর অনুষ্ঠান থেকে এসে ভাল কাজ করছে।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাহিদা বারিকের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জের বিজিবি-৬২ (বেটালিয়ান) এর অধিনায়ক মেজর হাবিব ইবনে জাহান, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ^াস, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন আহম্মেদ, চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোরশেদ সারোয়ার ফয়েজসহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।

এদিকে দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং রক্তের গ্রুপ নির্ণয় অনুষ্ঠানে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করে। শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর আদলে মুজিবকোর্ট পড়ে ৭ই মার্চের ভাষণ দেন। আর বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর ছবি ও লাল সবুজের পতাকা অঙ্কন করে। এ সময় উপজেলার স্বাস্থ্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে। অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ীদের মাঝে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বই উপহার দেন এবং সকল শিক্ষার্থীদের মাঝে বই তুলে দেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook