জুলাই ২৭, ২০২১

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ পূর্তিতে প্রকৌশলী স্বপ্নীল দাশ নিলয়ের বিনম্র শ্রদ্ধা

রাশেদুল হাসান অভিঃ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ পূর্তির ১০১তম জন্মদিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ‘ভাষা সৈনিক নাগিনা জোহা সমাজ কল্যাণ পরিষদ’ সামাজিক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও তরুণ জাতীয় পার্টি নেতা প্রবাসী প্রকৌশলী স্বপ্নীল দাশ নিলয়।

প্রবাস থেকে প্রকৌশলী স্বপ্নীল দাশ নিলয় এক বার্তায় ‘দৈনিক আজকের বাংলাদেশ’ অনলাইন নিউজ পোর্টালকে জানান, “আজ ১৭ মার্চ, ২০২১ইং রাজনীতির মহাকবি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ পূর্তির ১০১তম জন্মদিন উপলক্ষে আমি আমার নেতা নারায়ণগঞ্জ মহানগর জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব ও নাসিক ২৪ নং ওয়ার্ডের জননন্দিত কাউন্সিলর জননেতা আফজাল হোসেনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই এবং প্রিয় নারায়ণগঞ্জবাসীকে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

এই দেশ ও জাতির জন্য আজীবন নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু৷ জেল-জুলুম ও নানাভাবেভাবে অত্যাচার-নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন তিনি। তবুও কখনো পিছে হটেননি। শৈশব থেকে জাতির জন্য লড়াই সংগ্রাম করতে-করতে তিনি খোকা থেকে মুজিব এবং মুজিব থেকে বঙ্গবন্ধু হয়েছিলেন। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে মহান মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত বাঙ্গালী জাতির বিভিন্ন অধিকার আদায় থেকে শুরু করে মহান স্বাধীনতা অর্জনে প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামেই নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। এই দেশ প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুর অবদান সর্বোচ্চ। বাংলাদেশ মানেই বঙ্গবন্ধু।

কিন্তু ১৯৭৫ সালের ভয়াল ১৫ আগস্টে দেশ ও স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিরা একত্রিত হয়ে বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে সপরিবারে হত্যা করার মাধ্যমে এদেশকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা হিসাবে গড়ে তোলার মহান স্বপ্নকে মুছে দেয়ার অপচেষ্টা চালায়।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরবর্তী দীর্ঘ সময় ধরে তারা এদেশে জুলুম-অত্যাচার, সাম্প্রদায়িক ও অগণতান্ত্রিক চেতনার বীজ প্রতিষ্ঠা করার প্রয়াস চালিয়ে যায়। দেশ বিরোধী অপশক্তিরা স্বাধীন বাংলাদেশকে ধীরে-ধীরে পাকিস্তানি চেতনায় ফিরিয়ে নিতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যায়।

তবে দীর্ঘদিন পর বাঙ্গালী জাতির আলোর দিশারি হয়ে এদেশের হাল ধরেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনিও তার পিতার আদর্শ অনুসরণ করে দেশ বিরোধী সকল অপশক্তির সাথে লড়াই-সংগ্রাম করে এই জাতিকে পুনরায় মুক্তির পথ দেখান। এই জাতির কল্যাণে পিতার মতো তিনিও নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন সর্বদা।
বর্তমানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে দুর্বার গতিতে। পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অপূর্ণ স্বপ্ন সোনার বাংলা গড়ার ধারাবাহিকতা ফিরিয়ে এনে আজ তিনি দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তর করে চলেছেন। আজ তার নেতৃত্বে সারাদেশে উন্নয়নের জোয়ার বয়ে চলেছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের এই অগ্রযাত্রার বড় অংশ হয়ে আমাদের নারায়ণগঞ্জকে ঢেলে সাজাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী ওসমান পরিবার। ঐতিহ্যবাহী এই পরিবারের প্রতিটি সদস্য বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে দীর্ঘ কয়েক যুগ ধরে নারায়ণগঞ্জবাসীর কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। জনগনের সুখ-দুঃখে সর্বদা পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন তারা। এমনকি এদেশের প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে এই পরিবারটির রয়েছে অভাবনীয় ভূমিকা।

আমি সর্বদাই গর্বিত অনুভব করি ঐতিহবাহী ওসমান পরিবারের একজন ক্ষুদ্র কর্মী হতে পেরে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নকে বাস্তবায়নে একজন ছোট অংশীদার হয়ে ঐতিহ্যবাহী ওসমান পরিবারের নেতৃত্বে কাজ করে যেতে চাই আমৃত্যু।

আজ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ পূরণের ঐতিহাসিক ১০১তম জন্মদিনে মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থণা করি তিনি যেনো বঙ্গবন্ধুর বিদেহী আত্মার শান্তি দান করেন এবং বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া মহান স্বপ্ন পূরণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু দান করেন।

সবাই দোয়া করবেন আমি যেনো বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ঐতিহ্যবাহী ওসমান পরিবারের একজন ক্ষুদ্র কর্মী হয়ে আমার নেতা জননেতা কাউন্সিলর আফজাল হোসেনের নেতৃত্বে সর্বদা নারায়ণগঞ্জবাসীর কল্যাণে নিয়োজিত থাকতে পারি।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook