সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ও ২১ শে ফেব্রুয়ারী’র অনুষ্ঠান বন্ধ করলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্টঃ-

জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে যুব সমাজকে মাদকমুক্ত রাখতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ও মহান ২১শে ফেব্রুয়ারী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠান বন্ধ করে প্যান্ডেলের বাঁশ তুলে নিয়ে আগুনে পুড়িয়ে দিলেন নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির হোসাইন।

২১শে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবসটি বাংলাদেশ ছাড়াও আন্তর্জাতিক ভাবে সারা বিশ্বে যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়। অথচ যেই দেশের যুবকদের বুকের তাজা রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের এই বাংলা ভাষা সেই বাংলাদেশেই কতিপয় হাইব্রিড ও সন্ত্রাসী মহলের কাছে জিম্মি হয়ে ২১শে ফেব্রুয়ারীর অনুষ্ঠান করতে বাঁধার সম্মুখীন হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
তথ্যমতে,গত ১১ই ফেব্রুয়ারী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করা হয়েছিলো সেই সাথে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের নয়াপুর ইসলামী সম্মেলন মাঠে প্রতিবছর স্থানীয় যুবসমাজের উদ্যোগে যথাযথ মর্যাদায় মহান ২১শে ফেব্রুয়ারী পালন করা হয়।এবারও এই দিবসটি উপলক্ষে স্থানীয় যুবসমাজ শোক র‍্যালী আলোচনা সভা ও একটি খেলাধুলার আয়োজন করেছিলেন।এই খবর শুনে সাদিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির হোসাইন ২১শে ফেব্রুয়ারীর আগের রাত থেকেই এই মাঠে অনুষ্ঠান না করার জন্য তার বাহিনীর সন্ত্রাসীদেট পাঠিয়ে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলো।এর পর থেকে সন্ত্রাসী হামলার ভয়ে কেউ মাঠে আসতে পারেনি।২১শে ফেব্রুয়ারীর দিন ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত জাকির হোসাইন নিজে মাঠে দাড়িয়ে তার লোকজন মোমেন,মজিবুর ও আমির সহ অজ্ঞাত সন্ত্রাসী দিয়ে মাঠে অনুষ্ঠানের জন্য প্যান্ডেল তৈরী করার বাঁশ তুলে নিয়ে যায়। স্থানীয়রা আরও জানান এলাকার যুবসমাজকে মাদক মুক্ত রাখতে এই মাঠেই ২১শে ফেব্রুয়ারী উপলক্ষে একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছিল।সেই খেলার সকল আয়োজন নষ্ট করে মাঠের বাঁশ গুলো তুলে নিয়ে আগুনে পুড়িয়ে দেয় জাকির হোসাইন। প যা সিসিটিভি ফুটেজে স্পষ্ট দেখা গিয়েছে। সরকারী একটি মাঠে সরকারী অনুষ্ঠানে বাঁধা সৃষ্টি করে এসব কি করে আবার আওয়ামীলীগের নৌকা প্রার্থী হয়ে চেয়ারম্যান হতে চায় এমনটাই প্রশ্ন সাধারণ মানুষের। এলাকাবাসী আরও জানান জাকির হোসাইন কি এমন আলাদিনের চেরাগ পেলেন যে রাতারাতি এতো অঢেল টাকার মালিক বনে গেলেন?যেই জাকির এলাকায় ছেচরা জাকির নামে পরিচিত ছিলো সেই জাকির কয়েক বছরে নিজস্ব বাহিনী গঠণ করে রাতারাতি বাড়ি গাড়ীর মালিক হয়ে আগে পিছে সন্ত্রাসী বহর নিয়ে আরেক জিকে শামিমের মতো দাপট নিয়ে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে যাচ্ছে।

জাকির তার শশুর বাড়ীর লোকজন জামাত বিএনপির পদবী নেয়া লোকদের সাথে নিয়ে নয়াপুর বাজরের পাশে সরকারী জায়গায় বাউন্ডারি দিয়ে জোরপূর্বক দখল করে রেখেছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত জাকির হোসাইনকে কল করলে তিনি তা অস্বীকার করে বলেন,এই ধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি।

এ বিষয়ে সাদিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও স্থানীয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রশীদ মোল্লা বলেন,বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। এ বিষয়ে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া দরকার।প্রয়োজনে আমি প্রশাসনের সাথে কথা বলবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook