শুক্র. সেপ্টে ২৫, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

সোনারগাঁয়ের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট নিয়ে কালামের বক্তব্য ফেসবুকে ভাইরাল

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্ট :-

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে দেয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালামের জ্বালাময়ী বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম(ফেসবুকে) ভাইরাল হয়েছে।

গত মঙ্গলবার রাতে গত রোববার ও সোমবারের দুটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মাহফুজুর রহমান কালামের ব্যাক্তিগত ফেসবুক পেইজ থেকে তিনি সোনারগাঁওয়ের সকল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য পোষ্ট করার পর মূহুর্তেই তার ১লক্ষাধিক ভিউয়ার, কয়েক হাজার শেয়ার,লাইক,কমেন্টস হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়।

বক্তব্যে কালাম বলেন,সোনারগাঁওয়ে এই করোনা ভাইরাসের মহামারীতেও ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্র থেমে নেই। জেলা কমিটির কতিপয় স্বার্থপর ও লোভী প্রকৃতির নেতারা সোনারগাঁও উপজেলার আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের বিভক্ত করতে অর্থের বিনিময়ে তথাকথিত আহবায়ক কমিটি দিয়ে আওয়ামীলীগকে নিশ্চিহ্ন করতে উঠে পড়ে লেগেছে। তারা আওয়ামীলীগের পরিচয় দিয়ে নিজেদের জাতীয় পার্টির এমপির কাছে বিক্রি করে দিচ্ছে। সাধারণ মাস্কের জন্যও আজ তারা আহবায়ক কমিটির নামে জাতীয় পার্টির এমপির কাছে হাত পেতে থাকে।

যদিও এর আগের দিন দুজন আওয়ামীলীগের নামধারী নেতা জাতীয় পার্টির এমপি খোকা সাহেবের কাছে গিয়ে তারা নাকি জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেছেন। সোনারগাঁওয়ের আপামর জনসাধারণের কাছে আমার প্রশ্ন হলো,সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামীলীগের কি এমন ধৈন্যদশা হলো যে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় থাকার পরও জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ছেড়ে খোকা সাহেবের জাতীয় পার্টিতে যোগদান করবে?
একদিকে আওয়ামীলীগের কতিপয় নামধারী নেতারা জাতীয় পার্টিতে যোগদান করবে আর অন্যদিকে আওয়ামীলীগের তথাকথিত ও স্বঘোষিত আহবায়ক কমিটিকে মাস্ক বিতরণ করবেন এমপি খোকা সাহেব। একই অঙ্গে দুটি রূপ কিভাবে হয়?
বিগত বিএনপি জামাত জোট সরকারের আমলে সারাদেশের ন্যায় সোনারগাঁওয়েও জনগণ জীবনের ভয়ে আওয়ামীলীগের নাম পর্যন্ত মুখে আনতে ভয় পেতো। সেই দুঃসময়ে আমরা যারা তৃণমূল নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজপথে থেকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম। আজ তথাকথিত স্বঘোষিত আহবায়ক কমিটি এসে আমাদের তৃণমূল নেতাকর্মীদের অবজ্ঞা করে জাতীয় পার্টির এমপির সাথে এবং বিএনপি জামাত নেতাকর্মীদের সাথে আতাত করে চলবে আর আমরা উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা বসে থাকবো তা হবে না। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করছি। করোনা পরিস্থিতি স্থিতিশীল হলে আমরা অবশ্যই আবারও সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রত্যেকটি ওয়ার্ড, ইউনিয়ণ ও উপজেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীরা আবারও সোনারগাঁওয়ের রাজপথে থেকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে শক্তিশালী করতে কাজ করবো ইনশাআল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook