সোম. সেপ্টে ২৮, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

আজকের বাংলাদেশ রির্পোট:-

রূপগঞ্জে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে সহপাঠীরা। অভিযুক্ত দাউদপুর পুটিনা উচ্চ বিদ্যালয়ের খন্ডকালীন শিক্ষক জাকির হোসেন।

শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে স্কুল প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অভিযুক্ত শিক্ষকের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানানো হয়। মানববন্ধনে সমর্থন জানিয়ে উপস্থিত ছিলেন স্কুলের শিক্ষক ও অভিভাবকগণ।

শিক্ষার্থীরা মানববন্ধনে অভিযোগ করে জানান, গত মে মাসে দাউদপুর পুটিনা উচ্চ বিদ্যালয়ের খন্ডকালীন শিক্ষক জাকির হোসেনের কাছে দশম শ্রেণির এক ছাত্রী তার কাছে প্রাইভেট পড়তে গেলে একা পেয়ে তাকে জাপটে ধরে এবং যৌন হয়রানি করেন। সেসব মোবাইলেও তুলে রাখেন।

এ ঘটনা ছাত্রী সাথে সাথে বিদ্যালয়ে শিক্ষিকা মুনমুন বেগমকে জানালে এ ব্যাপারে তাকে বাড়াবাড়ি না করতে বলেন। এদিকে গত মঙ্গলবার শিক্ষক জাকির হোসেন ছাত্রীর সহপাঠী শাহ আলমের মাধ্যমে মোবাইলে তোলা সেই ছবি দেখিয়ে কুপ্রস্তাব দেয়। অন্যথায় ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে ছড়িয়ে দেয়ায় হুমকি দেয়। বিষয়টি ছাত্রী তার পরিবারকে জানালে তারা বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা পর্ষদ ও অন্যান্য শিক্ষকদের পরামর্শে গত বুধবার রূপগঞ্জ থানায় শিক্ষক জাকির হোসেন ও শাহ আলমকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর থেকেই গা ঢাকা দেয় অভিযুক্ত শিক্ষক জাকির ও সহপাঠী শাহ আলম।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন এটিএম জাহাঙ্গীর, রফিকুল ইসলাম, মুকুল পাশা, সাইফুল ইসলাম, রুমা আক্তার, আমিন রানা, সোহেল রানা, জাহাঙ্গীর হোসেনসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

এ ব্যাপারে দাউদপুর পুটিনা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জামান মিয়া বলেন, মামলা হবার পর থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক বিদ্যালয়ে আসছেন না। এ কারণে আমরা এখনো তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারিনি। তবে এ ব্যাপারে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য আমরা রূপগঞ্জের সাংসদ এবং মাননীয় বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর (বীর প্রতিক) কাছে গিয়েছিলাম। তিনি যে সিদ্ধান্ত দিবেন, সে সিদ্ধান্তই বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বাস্তবায়ন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook