বৃহঃ. অক্টো ২৯, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

নাঃগঞ্জে বন্দরে জাহাজ কর্মচারীর ছুরিকাঘাতে এক কর্মচারী নিহত, মাস্টার ও বাবুর্চি আহত

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্ট :-

নারায়ণগঞ্জে বন্দরে সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যাকান্ডের রেশ কাটতে না কাটতে আরেকটি খুনের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার বন্দরের মাহমুদনগর এলাকায় খুনের এ ঘটনাটি ঘটে। একটি নোঙর করা জাহাজে খাবার খাওয়াকে কেন্দ্র করে জাহাজের কর্মচারী সবুজের (২৬) এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন অপর কর্মচারী টিটন সরকার(৩৫)। এ সময় সবুজ জাহাজের মাস্টার তাজুল ইসলাম (৪৫) ও বাবুর্চি মোশারফ হোসেনকে (৪০) কুপিয়ে আহত করে শীতলক্ষ্যা নদী সাঁতরে পালিয়ে যায় । আহত দু’জনকে আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত টিটন সরকার নড়াইলের লোহাগড়ার ইটনা এলাকার আবদুস সাত্তারের ছেলে। সবুজ গোপালগঞ্জ সদর থানার বড়পা গ্রামের দিলীপের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ সবুজের চাচাত ভাই নাহিদকে আটক করেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার চট্টগ্রাম থেকে এমভি নিউটেক -৪ নামে একটি ক্লিংকারবাহী জাহাজ নারায়ণগঞ্জের বন্দরের মাহমুদ নগর এলাকার ইএনসি সিমেন্টের ঘাটে নোঙর করে। সবুজসহ জাহাজের সব ষ্টাফ দুপুরের খাওয়া খায়। বিকেল ৪টার দিকে সবুজ বাবুর্চির কাছে আবারও খাবার চায়। খাবার না দেয়ায় উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি এবং মারামারি হয়। এক পর্যায়ে সবুজ ধারালো ছুরি নিয়ে হামলা চালায়। তার এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে জাহাজ কর্মচারী টিটন সরকার ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় ছুরিকাঘাতে আহত হন জাহাজের মাস্টার তাজুল ইসলাম ও বাবুর্চি মোশারফ হোসেন। ঘটনার পর সবুজ জাহাজ থেকে নদীতে লাফিয়ে পড়ে সাঁতরে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি ফখরুদ্দিন ভুইয়া জানান, খাবার নিয়ে জাহাজের স্টাফদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এ সময় এক স্টাফ ছুরি নিয়ে হামলা করে। এতে জাহাজের ৩ জন স্টাফ আহত হন। আহতদের হাসপাতালে নেয়ার পথে টিটন সরকার নামে একজন মারা যান। এ ঘটনাটি নৌপুলিশ দেখবে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook