সোম. সেপ্টে ২১, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

বন্দরে দুই বাল্য বিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও শুক্লা সরকার

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্ট:

নারায়ণগঞ্জর বন্দরে একদিনে দুই বাল্যবিয়ে বন্ধ করেছেন বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুক্লা সরকার। বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে লাবণ্য (১৫) ও মিথিলা আক্তার (১৫) নামের সপ্তম ও দশম শ্রেণির দুই ছাত্রী।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শুক্লা সরকার উপজেলার বন্দর ইউনিয়নের কুশিয়ারা ও ধামগড় ইউনিয়নের কাজীপাড়া গ্রামে গিয়ে এ বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন। লাবণ্য পুরানবন্দরের মজিদ আয়েশা দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণীর ও মিথিলা আক্তার শেখ জামাল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শুক্লা সরকার জানান, মহিলা অধিদপ্তর ও স্থানীয়দের দেওয়া সংবাদের ভিত্তিতে তিনি কুশিয়ারার লুৎফর রহমান ও কাজীপাড়া গ্রামের আলতাফ হোসেনের বাড়িতে যান। এ সময় লুৎফর রহমানের সপ্তম শ্রেণী পড়–য়া কন্যা লাবণ্য (১৫) ও আলতাফ হোসেনের দশম শ্রেণি পড়–য়া কন্যা মিথিলার (১৫) বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। পরে তিনি বিয়ে বন্ধ করে দেন এবং ১৮ বছর বয়স না হওয়া পর্যন্ত তাদের বিয়ে দেবেন না এই মর্মে দুই ছাত্রীর অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেকা নেন।

এ সময় তিনি বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসানউদ্দিন আহম্মেদ ও ধামগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদকে বাল্যবিয়ে বন্ধ বিষয়ে জনগণকে সচেতন করার তাগিদ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook