বুধ. জানু ২০, ২০২১

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

রাত পোহালেই আল-আমিন মসজিদ কমিটির নির্বাচন সুষ্ঠ নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ীর সম্ভাবনা কাইয়ুম- শাহজাহান প্যানেল

আজকের বাংলাদেশ রির্পোট:-

আগামীকাল শুক্রবার ১৩ই সেপ্টেম্বর। রাত পোহালেই শুরু হতে যাচ্ছে বহুল প্রতিক্ষিত নারায়নগঞ্জ বন্দর উপজেলার আমিন আবাসিক এলাকায় অবস্থিত আল-আমিন জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে মসজিদ মুসল্লিদের মাঝে বইছে উৎসাহ উদ্দীপনার আমেঝ। দেশে এটাই প্রথম মসজিদ কমিটির নির্বাচন। শুক্রবার সকাল ৮.০০ঘটিকা থেকে দুপুর ১২.০০ঘটিকা পর্যন্ত গিয়াস উদ্দিন চৌধূরী স্কুলে বিরতিহীনভাবে অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন। দুইশত উনিশজন সমাজভিত্তিক ভোটারের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে এই নির্বাচন। দুই প্যানেলে পাঁচজন করে দশজন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ গ্রহন করছেন। দুটি প্যানেলের মধ্যে সভাপতি প্রার্থী হাজী মোজাম্মেল হকের ব্যালট নং-১ সহ-সভাপতি আশ্রাফুদ্দিনের ব্যালট নং-২ সাধারন সম্পাদক লুৎফর রহমানের-৩ যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুর রহমান-৪ এবং কোষাধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম সর্দারের ব্যালট নং-৫। অন্যদিকে অপর প্যানেলর প্রতিদন্ধী সভাপতি প্রার্থী হাজী মো: আব্দুল কাইয়ুম এর ব্যালট নং-৬ সহ-সভাপতি হাজী মো: জিয়া উদ্দিনের ব্যালট নং-৭ সাধারন সম্পাদক শাহজাহান ব্যালট নং-৮ যুগ্ন-সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ আলীর ব্যালট নং-৯ এবং সাবেক কোষাধ্যক্ষ ও বর্তমান প্রার্থী হাজী মো: আমজাদ হোসেন ব্যালট নং-১০। প্রকাশ থাকে যে পূর্বের কমিটিতে উভয় প্যানেলই কার্যকরী কমিটিতে অর্ন্তরভূক্ত ছিল। এবং তারা একত্রিত হয়ে শাহজাহানের নেতৃত্বে আল-আমিন মসজিদের সকল উন্নয়নের কাজ সম্পূন্ন করেছে। কমিটির সকল কাজের আয়-ব্যয় জবাবদিহিতামূলক মুসল্লিদের নিকট প্রকাশ করা হতো। তাছাড়া শাহজাহান গিয়াস ও আমজাদ হোসেনে দায়িত্ব পালনকালে মুসল্লিদের সার্বিক সহযোগীতায় আল-আমিন মসজিদকে টিনের ঘর থেকে পাঁচ তলা ভবন পর্যন্ত নির্মান করতে সক্ষম হয়েছেন। সুপেয় পানির জন্য ডিপ টিউবওয়েল বসিয়েছেন। তৃতীয় তলা পর্যন্ত উন্নত টাইলস লাগিয়েছন। তাছাড়া এসির ব্যবস্থা থেজে শুরু করে ছোট বড় অসংখ্য উন্নয়নমূলক কাজ করতে সক্ষম হয়েছেন। কাইয়ুম শাহজাহানের ভবিষ্যৎ লক্ষ্য হচ্ছে মসজিদের আয়তন বাড়াতে পাশের জমি ক্রয় করে তা প্রশস্ত করা। পাঁচতলা পর্যন্ত টাইলস করে এসির ব্যবস্থা করা। অত্যাধুনিক অজুখানা সহ সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা করে দেয়া। প্রতিটি আয় ব্যায়ের হিসাব নোটিশ বোর্ডে সাটিয়ে দেয়া। আর এসকল কাজের মূল্যায়ন হিসেবে সাধারন মুসল্লিদের নিকট কাইয়ুম -শাহজাহান প্যানেল অনেকটা এগিয়ে। কাইয়ুম-শাহজাহান প্যানেলের দাবী যেহেতু মসজিদ কমিটির নির্বাচন সেহেতু প্রশাসন যেন একটি সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেয়। যে নির্বাচনে প্রতিটি মুসল্লি যেন তার নাগরিক অধিকার হিসেবে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে। তাছাড়া সুষ্ঠ নির্বাচনে মুসল্লিগন যাকেই ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে তাকেই সম্মানের সহিত মেনে নিবে। তবে কাইয়ুম-শাহজাহানের আশা অতীত ভবিষ্যৎ উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় তাদের প্যানেলকে মুসল্লিগন তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে যথাযথ মূল্যায়ন করবেন। এলাকাবাসীর দাবী উভয় পক্ষই যেন এলাকার শান্তি শূঙ্খলা বজায় রাখার সর্বাত্বক চেষ্টা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook