বুধ. নভে ২৫, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

ছাত্র-শিক্ষকদের সেই মধুর সম্পর্ক আর নাই: এসপি

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্ট:

জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ বলেছেন, ‘আমি সকল শিক্ষককে বলবো না কিছু শিক্ষককে বলবো যারা কোন টাকার বিনিময়ে পড়াতেন না, গরীব ছাত্রদের বিনা পয়সায় পড়াতেন। বর্তমান সমাজের দিকে লক্ষ্য করলে দেখবেন যে, ছাত্ররা শিক্ষকদের থেকে দূরে সরে যাচ্ছে। আজকাল শিক্ষকরা ছাত্রদের গায়ে হাত তুললে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন হচ্ছে। আসলে আমরা আমাদের জায়গা থেকে সরে যাচ্ছি। ছাত্র-শিক্ষকদের সেই মধুর সম্পর্ক আর নাই।’

সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫টায় নগরীর আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার ও মিলনায়তনে এক সুধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। আইপিডিসি ও প্রথম আলোর উদ্যোগে ‘প্রিয় শিক্ষক সম্মাননা’ উপলক্ষে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

এ সময় এসপি বলেন, ‘প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকরা পিতৃত্বসুলভ ও আন্তরিকতার সহিত আমাদেরকে পাঠ দান করাতেন। শিক্ষকরা আমাদের বেত দিয়ে ও ডাস্টার দিয়ে লেখাপড়ার জন্য পিটিয়েছেন তখন আমাদের বাবা-মা কোন কিছু মনে করতেন না। তারা মনে করতেন শিক্ষক যা করছেন তা আমার ছেলের ভালোর জন্য করেছেন এবং মধুর সম্পর্ক মনে করেছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘ভালো মানুষ ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে স্বার্থক মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে প্রত্যেকের জীবনে শ্রদ্ধেয় শিক্ষকের গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রয়েছে। আমি হাওর অঞ্চলের মানুষ। প্রতিদিন মাইলের পর মাইল পায়ে হেটে প্রাইমারি স্কুলে যেতাম।’

পুলিশ সুপার তার প্রিয় শিক্ষকের স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘কলেজ জীবনে গাঙ্গুলী স্যার আমাদের যে আন্তরিকতা ও পিতৃসুলভ আচরণ দিয়ে পড়াতেন তা কোন দিন ভুলবার নয়। কিছু দিন আগে হাই স্কুলের শিক্ষক বিএসসি সাইফুল স্যার তার স্কুলের সকল ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে সোনারগাঁ যাদুঘরে এসে ঘুরে গেছেন। এই গল্প সে সারা থানা এলাকায় বলে বেড়িয়েছেন। কলেজ জীবনের গাঙ্গুলী স্যার এখনো চিরকুট লিখে পাঠান ‘বাবা হারুন, এই লোকটার মেয়ের বিয়ে কিছু করতে পারলে করো’। স্যারের এই চিরকুট পেয়ে আমি আমার সাধ্যমত সাহায্য করেছি। তাই প্রিয় শিক্ষকদের কোন দিনও ভুলবার নয়।’

আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আইপিডিসি ও প্রথম আলোর উদ্যোগে ‘প্রিয় শিক্ষক সম্মাননা’ অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য এবং কিছু বলার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য আইপিডিসি ও প্রথম আলোকে ধন্যবাদ।’

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের সম্মানিত শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ এবং সুধীজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook