দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

সোনারগাঁওয়ে কবরস্থানের খাদেমকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ

আজকের বাংলাদেশ রিপোর্টঃ-

নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলায় কবর দেয়াকে কেন্দ্র করে কবরস্থানের ৭০ বছর বয়সের খাদেমকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্তরা হলো উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের মনাইর কান্দী গ্রামের মৃত কহিনুর মিস্ত্রিরির ছেলে মান্নান ও মোস্তফা।

জানা যায়, প্রায় ১৫ বছর আগে উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের মনাইরকান্দী গ্রামের কহিনূর মিস্ত্রি মারা যাওয়ার পর তাকে টেকপাড়া, মনাইরকান্দী ও চৌধুরীগাঁও গ্রামের সম্মিলিত কবরস্থানে দাফন করা হয়। দীর্ঘদিনে ওই কবরের উপর বা পাশে কোন লাশ দাফন হয়নি।

গত মঙ্গলবার (২২ জুন) একই গ্রামের হাজী নুরুল ইসলাম মারা যাওয়ার পর তাকে কহিনূর মিস্ত্রির পুরোনো কবরের পাশে দাফন করা হয়।

মৃত কহিনূর মিস্ত্রীর কবরের পাশে নতুন করে কবর দেওয়ায় কহিনূরের ছেলে মান্নান ও মোস্তফা ক্ষিপ্ত হয়ে বিভিন্ন ভাবে কবরস্থানের খাদেমকে মারধরের হুমকি দিয়ে আসছিল।

গত ২৪ জুন বৃহস্পতিবার খাদেম বৃদ্ধ হাতেম (৭০) গ্রামের মসজিদে মাগরিবের নামাজ আদায় করতে গেলে মৃত কহিনূর মিস্ত্রীর ছেলে মান্নান ও মোস্তফা মসজিদের ভেতর তাকে কিল ঘুষি লাথি মেরে মারাত্মকভাবে আহত করে। মারধরের ফলে বৃদ্ধ খাদেমের শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলা ফুলা জখম হয়।

জানা যায়, মারধরের ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে ভুক্তভোগী বৃদ্ধা হাতেম কবরস্থান কমিটি ও তিন গ্রামের পঞ্চায়েত কমিটির কাছে নালিশ জানান। এতে মৃত কহিনূর মিস্ত্রীর ছেলে মান্নান ও মোস্তফা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে বৃদ্ধ খাদেম হাতেম ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook