মঙ্গল. আগ ১১, ২০২০

দৈনিক আজকের বাংলাদেশ

সত্য প্রকাশে আপোষহীণ…

থানার ভিতরে সাংবাদিককে হুমকি আসামির : ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ

আজকের বাংলাদেশ রির্পোট :-

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নাসিক ১৮ নং ওয়ার্ডের শহীদ নগর (ডিয়ারা) এলাকার মাদক সম্রাট ও পুলিশ সোর্স হামিম রনি ওরফে কসাই রনি কে আটক করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ।
গত শনিবার ৩ আগষ্ট গোগনগর কড়ই তলা এলাকায় সদর মডেল থানার ওপেন হাউজডেতে ১৮ নং ওয়ার্ড নাসিক কাউন্সিলর কবির হোসাইন তার বক্তব্যে কসাই রনির বিরুদ্ধে এলাকাবাসীকে হয়রানি সহ নানান ধরনের অপকর্ম করার চিত্র তুলে বক্তব্য রাখেন এবং তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আহবান জানান।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সহকারী পুলিশ সুপার মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী তাৎক্ষণিক ভাবে কসাই রনি কে গ্রেফতার করার নির্দেশ দেন।

এএসআই সামসু কসাই রনি কে তখনই গ্রেফতার করে। কসাই রনি কে আটকের সংবাদে শহীদনগর ডিয়ারা এলাকাবাসীর মধ্যে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়।কসাই রনিকে আটক করায় পুলিশ কে সাধুবাদ জানান এলাকাবাসী। এএসআই সামসু কসাই রনি কে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন ৪০ পুরিয়া হেরোইন সহ আটক করা হয়।তাকে জেলহাজতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে । এলাকাবাসী কাউন্সিলর কবির হোসাইন কে কসাই রনির বিরুদ্ধে বিচার চেয়ে একাধিক নালিশ করে। কসাই রনির বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের ১ লা মে রাকসু নামে এক যুবককে কবরস্থানে নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্য গলা কাটে।সেই থেকে কসাই রনি নামে পরিচিতি পায়।২০১৯ সালের ১৬ এপ্রিল আবুল হোসেন খোকনের বাড়ী ভাংচুর চালায় কসাই রনি বাহিনী। রাদিকা নামে এক কিশোরীকে ধর্ষন করার চেষ্টা মামলা রয়েছে।এ ছাড়া ও থানায় একাধিক জিডি/ অভিযোগ রয়েছে কসাই রনির বিরুদ্ধে।

সাংবাদিক জুম্মন হোসেন সোহেল জানান, থানার ভিতরে কসাই রনি হুমকি দিয়ে বলে এটাই তোর শেষ ছবি তোলা।ইতিপূর্বে কসাই রনি একটি সংবাদ প্রকাশ করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমাকে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলেও পুলিশ সোর্স হওয়ায় কসাই রনির বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like us on Facebook